Friday , May 25 2018
Home / ইসলাম ও জীবন / ইসলামে জন্ম নিয়ন্ত্রণ কি জায়েজ?

ইসলামে জন্ম নিয়ন্ত্রণ কি জায়েজ?

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ মতিউল ইসলাম।

বিশেষ আপনার জিজ্ঞাসার ৪৮৮তম পর্বে ইসলামে জন্ম নিয়ন্ত্রণ জায়েজ কি না, সে সম্পর্কে পাবনা থেকে টেলিফোনে জানতে চেয়েছেন আনিসুর রহমান। অনুলিখনে ছিলেন জহুরা সুলতানা।

প্রশ্ন :  ইসলামে জন্ম নিয়ন্ত্রণ জায়েজ আছে কি না? জায়েজ হলে কী পদ্ধতিতে জন্ম নিয়ন্ত্রণ করা যাবে? এটা জানতে চাচ্ছি।

উত্তর : ভাই আপনি চমৎকার একটি প্রশ্ন করেছেন। আমি সন্তানদের খাওয়াব কীভাবে, পরাব কীভাবে, এই চিন্তা থেকে যদি কেউ জন্ম নিয়ন্ত্রণ করেন, তাহলে সেটি সম্পূর্ণ হারাম। কারণ রিজিকের মালিক হলেন আল্লাহ রাব্বুলআলামিন, রিজিকদাতা আল্লাহতায়ালা।

কিন্তু আমাদের সম্মানিত স্কলাররা বলেছেন, জন্ম নিয়ন্ত্রণ শুধু দুটি অবস্থায় করা যাবে। প্রথমত, এই মুহূর্তে যদি স্ত্রীর গর্ভে সন্তান আসে, তাহলে বড় ধরনের বিপদ হতে পারে, অর্থাৎ শারীরিক কারণে এই অবস্থায় জন্ম নিয়ন্ত্রণ করা যেতে পারে।

দ্বিতীয়ত, আগে যে সন্তানটি হয়েছে তাঁর অধিকার রয়েছে দুই বছর বুকের দুধ পান করার। ‘মায়েরা সন্তানদের দুধ পান করাবে দুই বছর’। এই দুই বছরের মধ্যে যদি মা গর্ভধারণ করেন, তাহলে আগের সন্তান অসুস্থ হয়ে যেতে পারে অথবা তাঁর অধিকার ক্ষুণ্ণ হতে পারে।

এই দুটি কারণে জন্ম নিয়ন্ত্রণ করার ব্যাপারে ওলামায়ে কেরাম বলেছেন যে, এই দুই কারণে জন্ম নিয়ন্ত্রণ করা যেতে পারে। কিন্তু খাওয়ানো, পরানোর কথা ভেবে জন্ম নিয়ন্ত্রণ করা জায়েজ নেই। এটি হারাম কাজ। ইসলামে যৌক্তিক কারণে, শরিয়া সম্মত কারণে জন্ম নিয়ন্ত্রণের অবকাশ রয়েছে।

Check Also

স্বামী স্ত্রীর লজ্জাস্থান দেখা হালাল না হারাম?

ইসলাম যেমন পরনারী ও পরপুরুষের সাথে অপ্রয়োজনীয় ভাবে দেখা সাক্ষাৎ, কথা-বার্তা বলা, অঙ্গ-প্রত্যাঙ্গের দিকে দৃষ্টিপাত, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *