Monday , April 23 2018
Home / রাজনীতি / কোনো উসকানিতে পা না দিতে বলেছেন খালেদা জিয়া

কোনো উসকানিতে পা না দিতে বলেছেন খালেদা জিয়া

কারারুদ্ধ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উদ্ধৃতি দিয়ে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘কোনো উসকানিতে পা না দিয়ে সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করতে দেশনেত্রী আমাদের সুনির্দিষ্টভাবে বলে দিয়েছেন।’

আজ বুধবার বিকেলে ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের কারাগারে বন্দী খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মির্জা ফখরুল এ মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, তিনি (খালেদা জিয়া) গণমাধ্যমের মাধ্যমে দেশবাসীকে জানিয়ে দিতে বলেছেন, তিনি ভালো আছেন। তিনি দেশের জন্য, গণতন্ত্রের জন্য যেকোনো ত্যাগস্বীকার করতে প্রস্তুত রয়েছেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, দেশনেত্রীর মনোবল অত্যন্ত উঁচু। তিনি সাহসিকতার সঙ্গে প্রতিকূল পরিবেশ মোকাবিলা করছেন। কারারুদ্ধ অবস্থায়ও খালেদা জিয়া দেশের জন্য চিন্তা করছেন বলে জানান মির্জা ফখরুল।

২৮ দিন ধরে কারাবন্দী রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তাঁর সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে গিয়েছিলেন মির্জা ফখরুলসহ বিএনপির শীর্ষ নেতারা। বেলা তিনটার দিকে দলীয় প্রধানের সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে প্রবেশ করেন মির্জা ফখরুল, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, জমির উদ্দিন সরকার, আবদুল মঈন খান, মির্জা আব্বাস, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী এবং বিএনপি চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব এ বি এম আবদুস সাত্তার।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় সাজা হওয়ার পর এই প্রথম দলটির নেতারা খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে গেলেন।

প্রসঙ্গত, সরকারি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। গত ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫–এর বিচারক আখতারুজ্জামান ওই রায় ঘোষণা করেন। এরপর থেকে খালেদা জিয়া ওই কারাগারে রয়েছেন।

একই মামলায় খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমানসহ মামলার অপর পাঁচ আসামির প্রত্যেককে ১০ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। বাকি চার আসামি হলেন সাবেক মুখ্য সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, সাবেক সাংসদ ও ব্যবসায়ী কাজী সালিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ ও জিয়াউর রহমানের ভাগনে মমিনুর রহমান। এঁদের মধ্যে পলাতক রয়েছেন তারেক রহমান, কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও মমিনুর রহমান।

Source: প্রথম আলো

Check Also

ব্রেকিং : ধেয়ে আসছে ঝড়-বৃষ্টি

ফাল্গুন বিদায় নিয়ে চৈত্র মাস চলে এলেও দেশের কোথাও এখন পর্যন্ত কালবৈশাখীর দাপট কিংবা ঝুম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *