Friday , May 25 2018
Home / রাজনীতি / ‘মিস্টার অ্যাটর্নি সাজা তো কম, আপিলের নির্দেশনা আছে সাজা কম হলে জামিন দেয়া যায়

‘মিস্টার অ্যাটর্নি সাজা তো কম, আপিলের নির্দেশনা আছে সাজা কম হলে জামিন দেয়া যায়

ঢাকা: অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আদালতকে বলেন, ‘আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেছেন, জরিমানা স্থগিত করেছেন, নথিও তলব করেছেন। অথচ তারা আজকেই জামিনের আবেদন করেছেন, আমরা সকালে তার কপি পেয়েছি। এখনো পড়তেও পারিনি।’

বৃহস্পতিবার(২২ ফেব্রুয়ারি) জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার সাজার বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল গ্রহণযোগ্যতার শুনানিতে এসব বলেন অ্যাটর্নি জেনারেল।

এ সময় আদালত বলেন,‘মিস্টার অ্যাটর্নি সাজা তো কম, আপিলের নির্দেশনা আছে সাজা কম হলে জামিন দেয়া যায়। যদিও এ নির্দেশনা বিশেষ আইনের আগের।’

উত্তরে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, মামলায় মেরিট আছে। নথি আসার পর আমরা শুনানি করব। জামিন আবেদনের শুনানির জন্য কার্যতালিকায় আসুক।

এ সময় দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান বলেন, আপিল এডমিশন হয়ে গেছে আমরা তার শুনানিতে অংশ নিতে পারিনি। আদালত বলেন, এখানে তো আপনাদের শোনার প্রয়োজন নেই।

পরে জামিন আবেদনের শুনানির জন্য সময় চান খুরশিদ আলম খান। তিনি বলেন, জামিন আবেদনের কপি আজকে(বৃহস্পতিবার) সাড়ে নয়টার দিকে পেয়েছি। যুক্তিসঙ্গত সময় দেয়া দরকার বলেও তিনি উল্লেখ করেন। পরে আদালত জামিন শুনানির জন্য রোববার দিন ঠিক করে দেন।

এর আগে আপিলের গ্রহণযোগ্যতার শুনানির শুরুতেই খালেদা জিয়ার অাইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী বলেন, আইন অনুযায়ী আপিল আবেদনের সঙ্গে সঙ্গেই শুনানির জন্য তা গৃহীত হয়। তারপরও প্রথা অনুযায়ী আপিল শুনানি গ্রহণের জন্য করতে আবেদন করছি। আপিলটি শুনানির জন্য গ্রহণ করেন। এরপর আমরা জামিনেরও আবেদন করবো।

এ সময় আদালত এ জে মোহাম্মদ আলীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনারা সাজা স্থগিত চেয়েছেন, জরিমানা স্থগিত চেয়েছেন এবং জামিনও চেয়েছেন। আমরা জানি সাজা স্থগিত চাওয়ার বিধান রয়েছে, কিন্তু কনভিকশন (দোষ প্রমান) স্থগিত হয় কিভাবে?

উত্তরে এ জে মোহাম্মদ আলী বলেন, এটা আমরা ঠিক করে দিব। তিনি বলেন বেগম জিয়া ১৫ দিন ধরে জেলে আছেন, তার বয়সও অনেক, তার সামাজিক অবস্থা বিবেচনা করেন, তাছাড়া তার সাজাও কম সুতরাং তিনি জামিন পাওয়ার যোগ্য।

শুনানি শেষে আদালত আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেন। একই সঙ্গে আপিল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত খালেদা জিয়ার জরিমানা স্থগিত করেন। এছাড়া এ মামলার নথি ১৫ দিনের মধ্যে নিম্ন আদালতকে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

Check Also

ব্রেকিং : ধেয়ে আসছে ঝড়-বৃষ্টি

ফাল্গুন বিদায় নিয়ে চৈত্র মাস চলে এলেও দেশের কোথাও এখন পর্যন্ত কালবৈশাখীর দাপট কিংবা ঝুম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *